জৈব রসায়নের গুরুত্বপূর্ণ ৩১টি প্রশ্ন ও উত্তর | জৈব রসায়ন MCQ

জৈব রসায়নের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নে আপনাকে স্বাগতম। এখানে জৈব রসায়নের mcq ৩১টি শেয়ার করা হয়েছে। আশা করছি এর দ্বাড়া একটু হলেও আপনি উপকৃত হবেন।



জৈব রসায়নের  গুরুত্বপূর্ণ ৩১টি প্রশ্ন ও উত্তর | জৈব রসায়ন MCQ
জৈব রসায়ন MCQ


জৈব রসায়নের  গুরুত্বপূর্ণ ৩১টি প্রশ্ন ও উত্তর | জৈব রসায়ন MCQ


১. অ্যালকোহল কী?

উত্তর: সম্পৃক্ত বা অসম্পৃক্ত অ্যালিফ্যাটিক হাইড্রোকার্বন থেকে অ্যারোম্যাটিক হাইড্রোকার্বনের পার্শ্ব শিকল থেকে এক বা একাধিক H-পরমাণু সমসংখ্যক - OH মূলক দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়ে যে সকল যৌগ উৎপন্ন হয় তাদেরকে অ্যালকোহলবলে। যেমন : ইথানল (CH3CH,-OH)।



২. মনােহাইড্রিক অ্যালকোহল কাকে বলে?

উত্তর : যে সকল অ্যালকোহলে শুধুমাত্র একটি – OH মূলক বিদ্যমান তাকে মনােহাইড্রিক অ্যালকোহল বলে। যেমন: ২- প্রোপানল।



৩. প্রাইমারী অ্যালকোহল কী?

উত্তর : যে সব মনােহাইড্রিক অ্যালকোহলের – OH মূলকযুক্ত কার্বনে কমপক্ষে দুটি H- পরমাণু থাকে তাদেরকে প্রাইমারী অ্যালকোহল বলে। যেমন: ইথানল (CH3-CH2-OH)।



৪. সেকেন্ডারী অ্যালকোহল কী?

উত্তর : যে সব মনােহাইড্রিক অ্যালকোহলের- OH মূলকযুক্ত করে একটিমাত্র H-পরমাণু থাকে তাদেরকে সেকেন্ডারী অ্যালকোহল বলে। যেমন: ২- প্রোপানল। 



৫. রেকটিফাইড স্পিরিট কি? 

উত্তর : 95.6% ইথানল এবং 4.4% পানির মিশ্রণকে রেকটিফাইড স্পিরিট বলে ।



৬. পাওয়ার অ্যালকোহল কাকে বলে?

উত্তর : মােটর-গাড়ীর জ্বালানিস্তুপে 20 30% অ্যালকোহলের সাথে পেট্রল ও তৃতীয় কোন দাহ্য পদার্থ যেমন ইথার বেনজিন মিশ্রিত করা হয়। এরুপ শক্তি উৎপাদনে ব্যবহৃত এ্যালকোহলকে পাওয়ার অ্যালকোহল বলে।



৭. লুকাস বিকারক কী? 

উত্তর : অনার্স ZnCl2 এবং গাঢ় HCI-এর মিশ্রণকে লুকাস বিকারক বলে।



৮. স্টার্চ এর সংকেত লিখ। 

উত্তর : স্টার্চ-এর সংকেত হল (C6H10O5)n



৯. অ্যালডিহাইড কাকে বলে?

উত্তর : দ্বিযােজী কার্বনিল মূলকের (=C= 0) এক হাতে একটি H- পরমাণু এবং অপরটিতে H- পরমাণু বা একযােজী অ্যালকাইল বা অ্যারাইল মুলক যুক্ত হয়ে যে যেীগ উৎপন্ন করে তাদেরকে অ্যালডিহাইড বলে।

যেমন : ইথান্যাল - CH3CHO



১০. কিটোন কাকে বলে?

উত্তর: দ্বি-যােজী কার্বনিল মূলকের উভয় যােজনীতে অ্যালকাইল বা আরাইল মূলক যুক্ত হয়ে যে সকল যৌগ উৎপন্ন করে তাদেরকে কিটোন বলে। যেমন- প্রােপানােন (CH3 -CO-CH3)



১. কার্বনাইল যেীগ কাকে বলে?

উত্তর : ত্রিযোজী কার্বনিল মুলকে H পরমাণু ও একযােজী অ্যালকাইল বা আরাইল মূলক যুক্ত হয়ে যে সকল যৌগ উৎপন্ন করে তাদেরকে কার্বনাইল যৌগ বলে।



১২. কার্বনিল যৌগ কি?

উত্তর : দ্বিযোজী কার্বনিল মূলক (>C= 0) যুক্ত যৌগকে কার্বনিল যােগ বলে। যেমন অ্যালডিহাইড (-CHO) এবং কিটোনসমূহ।



১৩. অ্যালকোহল পানিতে দ্রবণীয় কেন? 

উত্তর : অ্যালকোহল ও পানির অণুর মধ্যে দূর্বল ইলেস্ট্যাটিক আর্কষণ বলই হল পানিতে অ্যালকোহলের দ্রাব্যতার কারণ। তবে অ্যালকোহলে কার্বনের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে এ দ্রাব্যতা হাস পায়।



১৪. ফারমেন্টেশন বা গান কাকে বলে? 

উত্তর : জটিল অণু বিশিষ্ট জৈব যৌগকে এনজাইম নামক জটিল পদার্থের প্রভাবে বিয়ােজিত করে  অপেক্ষাকৃত সৱল, ক্ষুদ্র অনু বিশিষ্ট পদার্থে পরিণত করার প্রক্রিয়াকে ফারমেন্টেশন বা গাজন বলে।



১৫. মেথিলেটেড স্পিরিট কী? 

উত্তর : বিশুদ্ধ ইথানলকে পানের অযােগ্য করার জন্য দ্রাবকরুপে ব্যবহার উপযােগী রেখে এর সাথে ৫-১০% মিথানল দুর্গন্ধযুক্ত রঙিন পিরিডিন ৩%  বেনজিন মিশেয়ে দেওয়া হয়। ইথানলের এই মিশ্রনকে মেথিলেটেড স্পিরিট বলে। 



১৬. টলেন বিকারক কী?

উত্তর : সিলভার নাইট্রেড দ্রবণে অতিরিক্ত অ্যামােনিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ যােগ করলে যে বর্ণহীন দ্রবণ উৎপন্ন হয় তাকে টলেন বিকারক বলে।



১৭. ফেলিং দ্ৰবণ কী?

উত্তর: কপার সালফেটের জলীয় দ্রবণে সমআয়তনের সােডিয়াম হাইড্রোক্সাইড মিশ্রিত সােডিয়াম পটাসিয়াম টারটারেট লবণের দ্রবণ মিশ্রিত করলে যে গাঢ় নীল বর্ণের দ্রবণ উৎপন্ন হয় তাকে ফেইলিং দ্রবণ বলে।



১৮. ফরমালিন কী? 

উত্তর: ফরমালডিহাইড বা মিথান্যালের ৩০-৪০% জলীয় দ্রবণকে ফরমালিন বলে।



১৯. ক্লিমেনসন বিজারণ কি?

উত্তর: অ্যালডিহাইড ও কিটোনসমূহকে দিকে আমালগাম ও গাঢ় HCl সহ বিজারিত করলে কার্বলিন মূলক = C= 0 সরাসরি বিজারিত হয়ে মিথিলিন মূলকে (-CH2) পরিনত হয়ে সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন উৎপন্ন করে। এ বিক্রিয়াকে  ক্লিমেনসন বিজারণ বলে।



২০. কার্বক্সিলিক এসিড কাকে বলে?

উত্তর : যে সকল জৈব যৌগের অণুতে হাইড্রোজেন,আলকাইল বা আরাইল মূলকের সাথে কার্বক্সিল মূলক (-COOH) যুক্ত থাকে তাদেরকে কার্বক্সিলিক এসিড বলে। যেমন- ফরমক এসিড (H-COOH)।



২১. ভিনেগার বা সিরকা কী?

উত্তর : এসিটিক এসিডের 6-10% জলীয় দ্রবণকে ভিনেগার বা সিরকা বলে।



২২. পাইরােলিগনিয়াস এসিড কী? 

উত্তর: নরম কাঠের বিধ্বংসী পাতন করলে প্রাপ্ত তরলে 10% ইথানয়িক এসিড, 2-4% মিথানল ও 0.5% প্রােপানােনসহ অবশিষ্ট অংশ পানি থাকে। এ  মিশ্রণকে পাইরােলিগনিয়াস এসিড বলে।



২৩. গ্ল্যাসিয়াল এসিটিক এসি কাকে বলে?

উত্তর : অনার্দ্র ও ১০০% বিশুদ্ধ এসিটিক এসিকে গুসিয়াল এসিটিক এসিড বলে। 



২৪. আমিন কাকে বলে? 

উত্তর : আমােনিয়ার এক বা একাধিক হাইড্রোজেন পরমাণু সমসংখ্য আলকাইল বা আরাইল মুলক দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়ে যে সকল যৌগ উৎপন্ন করে তাদেরকে আমিন বলে। যেমন : CH3-NH2



২৫. কাবিল আমিন পরীক্ষা কি? 

উত্তর: আলিফ্যাটিক ও অ্যালােম্যাটিক উভয় শ্রেণীর প্রাইমারী আমিনের সাথে কয়েক ফোঁটা CHCl3 অ্যালকোহলীয় KOH যােগ করে ৬০-৭০ ডি.সে. তাপমাত্রায় উত্তপ্ত করলে এ দুর্গন্ধযুক্ত কাৰ্বিল আমিন উৎপন্ন হয়। একে কাৰ্বিল আমিন পরীক্ষা বলে।



২৬. হফম্যান ডিগ্রেশন বিক্রিয়া কি?

উত্তর : যেকোনাে অ্যামাইডকে ব্রোমিন ও কস্টিক সোডা বা কস্টিক পটাশ দ্বারা উত্তপ্ত করা অ্যামাইড অপেক্ষা এক কার্বন কম বিশিষ্ট প্রাইমারি আমিন উৎপন্ন হয়। এই বিক্রিয়াকে হয় ফিগ্রেডেশন বিক্রিয়া বলে।



২৭. অ্যামাইডের কার্যকরী মূলকে সংকেত লিখ। 

উত্তর : অ্যামাইডের কার্যকরী মূলরে সংকেত হল  -C-O-NH2



২৮. এস্টার কাকে বলে? 

উত্তর : কার্বক্সিলিক এসিডের কার্বক্সিল মূলকের (-COOH) -OH গ্রুপ অ্যালকক্সি মূলক দ্বাড়া -OR প্রতিস্থাপন করলে যে যৌগ গঠিত হয় তাকে এস্টার বলে। যেমন : ইথাইল এসিটেট।



২৯. অ্যামাইড কী? 

উত্তর : কার্বক্সিলিক এসিডের কার্বক্সিল মূলকের (-COOH) -OH গ্রুপ অ্যালকক্সি মূলক দ্বাড়া -NH2 প্রতিস্থাপন করলে যে যৌগ গঠিত হয় তাকে অ্যামাইড বলে। 



৩০. এস্টমূলকের গাঠনিক সংকেত লিখ। 

উত্তর : এস্টারমূলকে গাঠনিক সংকেত  হল -C=OR



৩১. জৈব রসায়নের জনক কে?

উত্তর: ফ্রেডরিখ ভোলার (৩১ জুলাই ১৮০০ – ২৩ সেপ্টেম্বর ১৮৮২) ঊনবিংশ শতাব্দীর একজন জার্মান রসায়নবিদ।



শেষকথা: 

উপরের প্রশ্নগুলো জৈব রসায়নের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাত্তর। আশা করছি এই প্রশ্নগুলো প্রাকটিস করে পরিক্ষায় কমন পাবেন । ইনশাআল্লাহ। আমাদের ফেসবুক পেজ ফলো করতে ক্লিক করুন


আরো পড়ুন: 

১. আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার কারণ কি ছিল - Agartala Case

২. How To Change Blogger Copyright Footer Credit


*

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন